যোগাযোগ | আপনার জিজ্ঞাসা | ব্লগ     01847469945        BN | EN

প্রাণী, মানুষ ও COVID-19 এর সম্পর্ক:

‘করোনা’ আসলে নির্দিষ্ট কোন ভাইরাস স্ট্রেইনের নাম নয়, এটি ভাইরাসের অনেক গুলো ফ্যামিলি বা গোষ্ঠির মধ্যে একটি ফ্যামিলির নাম । এই বিশাল ফ্যামিলির সকল স্ট্রেইন কিন্তু আতংকের কারন নয়, শুধুমাত্র Novel Corona Virus দিয়ে COVID-19 রোগটি সৃষ্টি হয়েছে। তবে এই নভেল করোনা ছাড়াও ইতিপূর্বে আরও দুই ধরনের করোনা ভাইরাস মানুষের দেহে রোগ সৃষ্টি করেছিল।এর একটি হোল MERS coV যা এসেছিল এক প্রজাতির উট থেকে। আরেকটি হলো SARS CoV যা Civet cat নামক এক ধরনের বন্যপ্রাণী থেকে এসেছিল।

নভেল করোনা ছাড়াও করোনা পরিবারের আরও অনেক ভাইরাস আছে যেগুলো গবাদি পশুতে ও মুরগিতে সাধারন রোগব্যাধি সৃষ্টি করে থাকে। এগুলো মানুষকে আক্রান্ত করতে সক্ষম নয় যেমন আমরা গরুতে bovine corona virus পাই যা গবাদির ক্ষেত্রে সাধারন ডায়রিয়া ঘটায় যা কখনোই মানুষে কোন রোগ সৃষ্টি করতে পারেনা। কাজেই গরু বা মুরগীর করোনা ভাইরাস আছে শুনে আতংকিত হবার কিছু নেই। তবে আপনারা খামারি পর্যায়ের যারা আছেন তাদেরকে অবশ্যই কিছু সাধারন সতর্কতা মেনে চলতে হবে।

নিজেকে রক্ষার জন্য আপনাকে যা করতে হবেঃ
১। জীবন্ত পশুর বাজারগুলিতে যাওয়ার সময়, প্রাণী এবং পশুর সাথে সরাসরি সংস্পর্শ এড়িয়ে চলুন।

২। গবাদির জন্য জীবাণু মুক্ত সুষম খাদ্য নিশ্চিত করুন।

৩। নিজের জন্য কাঁচা বা আধা সিদ্ধ খাবার পরিহার করুন।

৪। ভাল মানের হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে অথবা সাবান দিয়ে আপনার হাত পরিষ্কার করুন এবং আপনার চোখ, মুখ বা নাক স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন।

৫। নিয়মিত জীবাণুনাশক স্প্রে ব্যবহার করুন। খামারের ফুটবাথের ব্যবস্থা করুন এবং সেখানে জীবানুনাশক ব্যবহার করুন।

৬। খামারের বর্জ্য নির্দিষ্ট জায়গায় ফেলুন, মাটি চাপা দিয়ে রাখুন বা পুড়িয়ে ফেলুন।

৭। আপনার বাড়িঘর এবং খামার পরিষ্কার-পরিছন্ন রাখুন।
আরেকটি কথা হোল যে গবাদি পশুর বা মুরগীর মাংস নভেল করোনার উৎস নয়, কাজেই নিশ্চিন্তে হালাল মাংস ভালভাবে সিদ্ধ করে খান।

করোনা কিভাবে ছড়ায়:
নভেল করোনা ভাইরাসটি আক্রান্ত মানুষের মাধ্যমে খুব দ্রুত ও সহজে ছড়ায় । তাই নভেল করোনা ভাইরাস থেকে নিরাপদ থাকতে চিকিৎসকদের দেয়া যাবতীয় সতর্কতা মেনে চলুন এবং সেইসব সতর্কতা প্রচার করুন। জনসমাবেশ এড়িয়ে চলুন এবং পরিষ্কার-পরিছন্ন থাকুন।

WHO-এর (বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা) ওয়েবসাইটে স্পষ্ট বলা আছে এখন পর্যন্ত পোষা কুকুর বিড়াল হতে এই নভেল করোনার জীবাণু মানুষে ছড়ানোর কোন প্রমান পাওয়া যায়নি।

তারপরেও সাধারন কিছু সতর্কতা মেনে চলতে বলা হয়েছে। যেমন পোষা কুকুর বা বিড়াল ধরার পর হাত সাবান দিয়ে ভালভাবে ধুতে হবে। এগুলোকে চুমু দেয়া থেকে বিরত থাকা বা এদের লালার সংস্পর্শ থেকে দূরত্ব বজায় রাখা। এগুলো শুধুমাত্র সাধারন সতর্কতার জন্য বলা হয়েছে। WHO এবং অন্যান্যরা COVID-19 বিষয় সম্পর্কে সর্বশেষ গবেষণা নিরীক্ষণ অব্যাহত রেখেছে এবং নতুন অনুসন্ধাননির্ভর নতুন কোন বিষয় উপলব্ধ হওয়ার সাথে সাথে তা জানানো হবে।